Homeশিক্ষামূলকIndia's No-01 Popular নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী জীবনী বাংলাতে পড়ুন।

India’s No-01 Popular নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী জীবনী বাংলাতে পড়ুন।

নমস্কার বন্ধুরা আজকে আমাদের আলোচনার বিষয় হল,Republic TV নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী জীবনী। এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা তুলে ধরার চেষ্টা করব,

Republic TV নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী জীবনীতে,অর্ণবের জীবনের ছোট বড় বিভিন্ন ঘটনাক্রমকে। আপনারা সবাই জানেন,ভারতের বিভিন্ন খবরের চ্যানেল গুলোর মধ্যে,

Republic TV একটি বহু চর্চিত সংবাদ মাধ্যম। আর এই Republic TV -র,মালিক হলেন অর্ণব গোস্বামী। যিনি তার চ্যানেলে আসা গেস্টের সঙ্গে প্রশ্ন সংলাপ এবং বেবাক মন্তব্যের জন্য,

প্রায় আমজনতার দৃষ্টি আকর্ষণ করে থাকেন। আসুন তাহলে জানা যাক নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী জীবনী বাংলাতে।

নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী জীবনী (Arnab Goswami Biography Bangla)


অর্ণব গোস্বামী জীবনী,তে যে বিষয় গুলি আপনাদের সামনে তুলে ধরব সেগুলি হল –

  • নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামীর জন্ম পরিচয়।
  • পড়াশোনা।
  • কেরিয়ার ও সাংবাদিক জীবন।
  • অর্ণব গোস্বামী প্রাপ্ত পুরুস্কার।
  • Republic TV মালিক অর্ণব গোস্বামী।
  • অর্ণব গোস্বামী কেস।
  • অর্ণব গোস্বামী গ্রেফতার।

অর্ণব গোস্বামী জন্ম পরিচয় (Arnab Goswami Childhood )


আজকে আমরা নিউজ অ্যাঙ্কার অর্ণব গোস্বামী হিসাবে যাকে চিনি। তার জন্ম হয় আসামের গুয়াহাটি শহরে এক অসমীয়া বাঙালী ব্রাহ্মণ পরিবারে।

১৯৭৩ সালের ৭ ই মার্চ অর্ণব গোস্বামীর জন্ম হয়। অর্ণবের বাবা মনোরঞ্জন গোস্বামী,পেশায় ছিলেন একজন অবসর প্রাপ্ত সেনা কর্নেল। পরে তিনি বিজেপি পার্টিতে যোগ দেন।

অর্ণব গোস্বামীর ঠাকুরদা রজনীকান্ত গোস্বামী ছিলেন মস্ত একজন উকিল। মা সুপ্রভা গোস্বামী ছিলেন একজন সমাজসেবী ও লেখিকা।

অর্ণব গোস্বামী গ্রেফতার

 

অর্ণবের দাদু গৌরীশঙ্কর ভট্টাচার্য ছিলেন সেকালে আসামের একজন প্রতিভাসম্পন্ন বামপন্থী নেতা। অর্ণব গোস্বামী বর্তমানে একজন বিবাহিত পুরুষ। তার স্ত্রী হলেন সমব্রতা গোস্বামী।

আরো পড়ুন: সন্দীপ মহেশ্বরী জীবনী। 

অর্ণব গোস্বামী শিক্ষা পর্ব (Arnab Goswami Education)


অর্ণব গোস্বামীর বাবা সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন। তাই অর্ণবের স্কুল শিক্ষা হয় বিভিন্ন স্থানে সেনা ছাউনির বিভিন্ন স্কুলে। অর্ণব দশম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেন দিল্লীর সেনা ছাউনির সেন্ট মেরি স্কুল থেকে।

দ্বাদশ শ্রেণী পাস্ করেন জব্বলপুর সেনা ছাউনির কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় থেকে। এরপর অর্ণব গোস্বামী (Arnab Goswami) সমাজবিদ্যা নিয়ে স্নাতক পাস্ করেন দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়ের হিন্দু কলেজ থেকে।

তারপর অর্ণব মাস্টার ডিগ্রি করার জন্য ইংল্যান্ড চলে যান। সেখানে তিনি ১৯৯৪ সালে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেইন্ট এন্থনিজ কলেজ থেকে সমাজ নৃতত্ব বিদ্যায় মাস্টার ডিগ্রি হাসিল করেন।

উল্লেখ্য অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ফেলোশিপ পেয়েছিলেন। ২০০০ সালে তিনি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যলয়ের থেকে গেস্ট ফেলোশিপ লাভ করেন।

অর্ণব গোস্বামীর কেরিয়ার ও সাংবাদিক জীবন (Arnab Goswami Carrier)


অর্ণব গোস্বামী তার প্রারম্ভিক কর্মজীবন শুরু করেন ২০০৪ সালে কলকাতার এক ইংরেজী দৈনিক ‘The Telegraph এর একজন নিউজ এডিটর হিসাবে।

কিন্তু একবছর কাজ করার পর তিনি সেখান থেকে ইতি টেনে,দিল্লী চলে আসেন। দিল্লিতে এসে ২০০৫ সালে তিনি NDTV তে News Hours শো,এর মাধ্যমে কেরিয়ার শুরু করেন।

এর পাশা-পাশি তিনি  সেকালের একটি জনপ্রিয় চ্যানেল DD Metro তে ‘নিউজ টু নাইট’ শো,তে নিউজ অ্যাঙ্কারিং শুরু করেন।

অর্ণব গোস্বামী জীবনী

 

২০০৬ সালে অর্ণব NDTV ছেড়ে চলে আসেন। এরপর অর্ণব গোস্বামী Times Now নিউজ চ্যানেলে মুখ্য এডিটরের পদে জয়েন করেন।

Times Now চ্যানেলে থাকা কালীন তিনি তার জনপ্রিয় নিউজ শো Frankly speaking with Arnab এ, বিভিন্ন দিগগজ লোকেদের সাক্ষাৎকার নেন।

এদের মধ্যে অন্যতম হলেন -বেনজিন ভুট্টো ,হামিদ কারজাই,দলাই লামা, হিলারী ক্লিন্টন, নবাব শরীফ,সোনিয়া গান্ধী ও ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উল্লেখযোগ্য।

Times Now সংবাদ চ্যানেলটির সঙ্গে মতবিভাজনে ২০১৬ সালের ০১ নভেম্বর তিনি Times Now চ্যানেল থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন।

এরপর তিনি Republic TV -র,সঙ্গে যুক্ত হন। বর্তমানে তিনি আজও Republic TV-র,মুখ্য সম্পাদক ও মালিক পদে আসীন রয়েছেন।

অর্ণব গোস্বামীর প্রাপ্ত পুরুস্কার সমূহ


অর্ণব গোস্বামী জীবনী অধ্যয়নে দেখা যায়, তিনি তার সাংবাদিক জীবনে বহু পুরুস্কার পেয়েছেন। তার প্রাপ্ত পুরুস্কার সমূহ গুলি হল –

  • ২০০৪ সালে NDTV তে প্রসারিত ‘নিউজ নাইট’ শো,এর অ্যাঙ্কারিং এর জন্য অর্ণব গোস্বামীকে এশিয়ান টেলিভিশন অনুষ্ঠানে, শ্রেষ্ঠ সংবাদ পরিবেশকের পুরুস্কার দেওয়া হয়।
  • ২০০৮ সালে অর্ণব উৎকৃষ্টতম সর্বোচ সাংবাদিক হিসাবে,রামনাথ গোয়েঙ্কা পুরুস্কার লাভ করেন।
  • ২০১২ সালে সংবাদ মাধমের Editor-in-chief এর খেতাব হিসাবে তাকে,এনডিএ পুরুস্কারে পুরস্কৃত করা হয়।
  • ২০১৯ সালের ৮ ডিসেম্বর অর্ণব গোস্বামীকে ব্রডকাস্টিং ফ্রেডারেশন এর অধক্ষ্য নির্বাচন করা হয়।

আরো পড়ুন: নোবেল পুরুস্কার কেন দেওয়া হয়। 

Republic TV -র, মালিক অর্ণব গোস্বামী


এবারে দেখব অর্ণব গোস্বামী জীবনী,তে Republic TV-র মালিক অর্ণব গোস্বামীকে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে অর্ণব রিপাবলিক টিভি শুরু করল –

বহু চ্যানেল থেকে রদবদল হয়ে অবশেষে অর্ণব গোস্বামী,এশিয়া নেট এর থেকে অর্থ সাহায্যে ২০১৭ সালের ৬ মে Republic TV চ্যানেলটি শুরু করেন।

সেইসময় Republic TV-র,একজন নিবেশক ও নির্দেশক ছিলেন রাজ্যসভার সদস্য রাজীব চন্দ্রশেখর। পরে তিনি বিজেপিতে যোগদানের পর,এশিয়া নেট এর নির্দেশক পদ থেকে ইস্তফা দেন।

Republic TV চ্যানেলটি সর্বদা নানা তর্ক বিবাদে ঘিরে থাকা সত্ত্বেও, অর্ণব গোস্বামী দ্বারা নেওয়া বিভিন্ন সেলিব্রেটিদের সাক্ষাৎকার এবং অর্ণবের বিবাদিত মন্তব্যের জন্য,

Republic TV চ্যানেলটি,সদা একটি জনপ্রিয় সংবাদ চ্যানেলের শিরোনামে থেকেছে। সমগ্র এশিয়ার মধ্যে অর্ণব গোস্বামীর Republic TV ইংরেজী চ্যানেলটি,

অর্ণব গোস্বামী

 

১০০ সপ্তাহ পর্যন্ত লাগাতার নম্বর ওয়ান লিস্টে থাকার রেকর্ড কায়েম করে। এর আগে ভারত তথা অন্য কোনো খবরের চ্যানেল ১০০ সপ্তাহ ধরে শীর্ষে থাকার কোনো রেকর্ড কায়েম করতে পারেনি।

অর্ণব গোস্বামী কেস


অর্ণব গোস্বামী জীবনী পড়তে,পড়তে এটা অন্তত বুঝতে অসুবিধা হচ্ছেনা আপনাদের,অর্ণব একজন মেধাবি এবং পরিশ্রমী মানুষ। কিন্তু পরিশ্রমী হলে প্রতিকূলতা থাকবেনা সেরকম কোনো কথা নয় –

লোক প্রসিদ্ধ শশী থারুর অর্ণব গোস্বামী এবং রিপাবলিক টিভির বিরুদ্ধে হাইকোর্টে অভিযোগ করেন,শশী থারুরের স্ত্রী সুনন্দা থারুর এর মৃত্যুর জন্য অর্ণব গোস্বামী ও তার রিপাবলিক টিভি দায়ী।

২০২০ সালে সুশান্ত সিং রাজপূত এর মৃত্য নিয়ে রিপাবলিক টিভির মাধ্যমে তিনি দেশের তরুণদের মনে প্রতিবাদের ঝড় তোলেন।

সুশান্ত সিং রাজপূত মামলা নিয়ে তার টিভি চ্যানেল রিপাবলিক টিভি,বড় সমালোচনার সম্মুখীন হয়। এছাড়া তিন তালাক বিল ইত্যাদি মামলায় সংবাদ মাধ্যমে তিনি মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

অর্ণব গোস্বামী লেটেস্ট নিউজ 


২০১৮ সালে অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে ইন্টেরিয়ার ডিজাইনার কুমোদ নায়েক এবং অম্বয় নায়েক আত্মহত্যা মামলায় অর্ণব গোস্বামীর উপর কেস দায়ের করা হয়।

মামলার কারণ হিসাবে সামনে আসে অর্ণব গোস্বামী ও তার রিপাবলিক টিভির ইন্টেরিয়ার ডিজাইনার দের তিনি অপমান করেন এবং তাদের কাজ করিয়ে মাইনে দেয়না।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ ইন্টেরিয়ার ডিজাইনারদের প্রতি অপমান এবং মাইনে বাকি রাখার কারণকে আত্মহত্যার কারণ বলে মনে করছেন।

 

এর জন্য অর্ণবকে ৩০৬ ধারা অনুসারে আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলায় অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করা হয়।

অর্ণব গোস্বামী গ্রেফতার


২০২০ সালে অর্ণব গোস্বামীকে ইন্টেরিয়ার ডিজাইনার কুমোদ নায়েক এবং অম্বয় নায়েক আত্মহত্যা মামলায়, মুম্বাই পুলিশ দ্বারা অর্ণব গোস্বামী গ্রেফতার হয়।

আবার অপরদিকে মহারাষ্ট্রে শিবসেনা সরকারের সঙ্গে তুমুল বিরোধিতার কারণে, অর্ণবের গ্রেফতারি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া সহ আরো অন্যান্য মাধ্যমে তুমুল শোরগোল দেখা দেয়।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতারের ভিডিও প্রসারণ করেন। তাতে আপনারা দেখে থাকবেন কিভাবে অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করে মুম্বাই পুলিশ টেনে হিচড়ে গাড়িতে তোলেন।

অর্ণবের বিরুদ্ধে ৩০৪ এবং ৩০৬ ধারায় মামলা রুজু করা হয়। এই ঘটনার প্রতিবাদে ও নিন্দায় সামিল হয় ব্রডকাস্ট এসোসিয়েশন সহ অমিত শাহ এর মত বড় নেতারা।

এরপর অর্ণব জামিনের আর্জি জানায় পুণা হাইকোর্টে। কিন্তু সেখানে তার জামিনের আর্জি খারিজ হয়ে গেলে, তিনি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। এরপর সুপ্রিম কোর্ট তাকে ১১ নভেম্বর জামিন দেয়।

আরো পড়ুন: পুলিশ গ্রেফতার করতে এলে আপনার কী মৌলিক অধিকার আছে ?

সচরাচর যে প্রশ্ন গুলো মানুষ জিজ্ঞাসা করে (Frequently asked Questions) ?


প্রশ্নঃ অর্ণব গোস্বামীর উপর কোন মামলা চলছে ?                                                                          উঃ –সুনন্দা পুস্কর মৃত্য মামলা।

প্রশ্নঃ অর্ণব গোস্বামীর স্ত্রী,র নাম কী ?                                                                                   উঃ- সমব্রতা রায় গোস্বামী।

প্রশ্নঃ-অর্ণব গোস্বামীর মাসিক আয় কত ?                                                                               উঃ- ১.৫ কোটি টাকা মাসিক আয়।(আনুমানিক)

প্রশ্নঃ-রিপাবলিক টিভির মালিক কে ?                                                                                    উঃ- অর্ণব গোস্বামী।

প্রশ্নঃ –অর্ণব গোস্বামীর জনপ্রিয় টিভি শো কী ?                                                                        উঃ- ১. নেশন ওয়ান টু নো এবং ২.পুছতা হ্যায় ভারত।

পরিশিষ্ট


অর্ণব গোস্বামী জীবনী অধ্যয়ন করে এটুকু বুঝতে পারা গেল শুধু সাফল্যের শিখরে পৌঁছে গেলেই,জীবনে প্রতিকূলতা শেষ হয়ে যায়না।

জীবনে প্রতিকূলতার পথ ধরেই সাফল্য আসে। তাই আমাদের অর্ণব গোস্বামী জীবনী পড়ে শিক্ষা নেওয়া উচিত, শুধুমাত্র প্রতিকূলতার দোহাই দিয়ে,

জীবনের কাছে হেরে গিয়ে কখনই সফলতা পাওয়া যায় না।  সফলতা পাওয়ার জন্য সংঘর্ষ করতে হয়। তাই আমরা বলতে পারি সংঘর্ষ হল সফলতার চাবি।

যাই হোক অর্ণব গোস্বামী জীবনী পরে আপনাদের কেমন লাগলো, দয়াকরে কমেন্ট করে আমাদের জানাবেন। আর যদি লেখাটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করে দেবেন। ধন্যবাদ।

 

 

 

a6cc12293fccf681cf15518ca50544bd?s=117&d=mm&r=g
KRISHNA SAHUhttps://www.sonobangla.com
আমি মনে ও প্রাণে একজন বাঙালি,তাই বাঙালি এবং বাংলা ভাষাকে ভালোবাসি। বাংলা ভাষার মধ্যে দিয়ে আপামর বাঙালির মনে বিভিন্ন ঘটনার বিশ্লেষিত প্রেক্ষাপটের বোধগম্য চিত্র ফুটিয়ে তোলায় আমার লেখনীর মূল উদ্দেশ্য।
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular